শসা খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা কী কী?

শসা খাওয়ার উপকারিতা:

হজমে সহায়তা করে। হাড় মজবুত করে। হৃদযন্ত্রের সুস্থতা করে। চুল ও নখের উন্নতি। শরীর রাখতে ও পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা করে। মানসিক উদ্বেগ ও চাপ কমাতে সাহায্য করে। ত্বক কোমল ও উজ্জ্বল করতে সহায়ক। শসা বা শসার রস ডায়াবেটিস রোগীর জন্যও বেশ উপকারী।

শসা খাওয়ার অপকারিতা:

যেহেতু শশা একটি কম ক্যালরিযুক্ত খাবার তাই শশা কেন অন্য যেকোন কম ক্যালরি যুক্ত খাবার একনাগারে খেতে থাকলে ওজন কমে যাবে। কিন্তু সেই সঙ্গে আপনার শরীরে দেখা দেবে বিভিন্ন পুষ্টি উপাদনের ঘাটতি। অন্য খাবার কম খেয়ে সারাদিন বা অতিরিক্ত পরিমানে শশা খেতে থাকলে বা ক্ষুধা লাগলেই শশা খেলে বদহজম, গ্যাসের সমস্যাসহ পেট ফাঁপা, পেট ব্যাথা, বমি বমি ভাব ইত্যাদি দেখা দেয়।

প্রায় এক মাস ধরে ওজন কমাতে সারাক্ষণ শশা খেলেই ঘটবে নানা বিপত্তি। শরীরে পর্যাপ্ত পুষ্টির অভাবে শরীর ভীষণ দুর্বল হয়ে যাবে। কাজ করার শক্তি পাবেন না। রক্ত কমে যাওয়ার আশংকা রয়েছে। এছাড়াও রক্তে গ্লুকোজের অভাবে মাথা ঘুরে পরে যাওয়ার মতো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাও ঘটতে পারে।

%d bloggers like this: