একটি ব্লগ দিয়ে কিভাবে আয় করবেন ? কিভাবে ব্লগ খুলতে হবে ? একটি ব্লগ দিয়ে কিভাবে আয় করবেন ?

ব্লগ দিয়ে কিভাবে আয় করবেন

একটি ব্লগ দিয়ে কিভাবে আয় করবেন

বর্তমানে স্বাধীন ভাবে আয় করার অনেক গুলি মাধ্যমের মধ্যে ব্লগিং করে আয় করা একটি অন্যতম মাধ্যম । যে কোন বিষয় নিয়ে আপনি ব্লগিং শুরু করতে পারবেন। তবে একটা পপুলার টপিকস নিয়ে আপনি ব্লগিং করলে খুব সহজেই করতে পারবেন। একটা ব্লগ বদলে দিতে পারে আপনার জীবন। অনেকেই এখন ব্লগ দিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে থাকেন। সারা বিশ্বে এখন ব্লগ খুব পপুলার একটি আয়ের উৎস। ১০০ ডলার থেকে ১০ হাজার ডলার পর্যন্ত আয় করতে ব্লগ একটি ভালো উৎস। আপনার জানা যে কোন একটি বিষয় বা আপনার ভালো লাগা যে কোন একটা বিষয়ে আপনি শুরু করতে পারেন ব্লগিং ।

কিভাবে ব্লগ খুলতে হবে ?

আপনি ফ্রিতে ব্লগ খুলতে পারবেন । অনেক ওয়েবসাইট আছে যারা ফ্রিতে ব্লগিং করার সুযোগ দিয়ে থাকে। যেমন আপনি চাইলে ওয়ার্ডপ্রেসে একটা একাউন্ট খুলে ব্লগিং শুরু করতে পারবেন। কিন্তু ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগিং করলে অ্যাডসেন্স পাবেন না। ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগিং করতে আপনাকে হস্টিং নিতে হবে। একটা টপ লেভেল ডোমেইন আর হোস্টিং সহ প্রতি বছর আপনাকে প্রায় ৫০০০ টাকা পেমেন্ট করতে হবে। ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগ সেট আপ করা একদম সহজ কাজ। কঠিন কোন কোড জানতে হবেনা ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগ সেট করতে। আপনি সিম্পল কিছু কোড জানলেই অথবা ভিজুয়াল দিয়েও ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগ তৈরি করতে পারবেন।

এবার আসি অন্য আরেকটি ওয়েবসাইটে যেখানে আপনি ফ্রিতে ব্লগ খুলতে পারবেন এবং এই ফ্রি ব্লগ দিয়েই আপনি অ্যাডসেন্স পেতে পারবেন। ব্লগার ডট কম। ব্লগার ডট কম হলো গুগলের একটা ফ্রি সাব ডোমেইন এবং হোস্টিং সেবা। আপনি চাইলে ব্লগার ডট কম ওয়েবসাইটে ফ্রিতে একটা ব্লগ খুলে ব্লগিং শুরু করতে পারবেন।  তবে ব্লগারে ফ্রি সাব ডোমেইন না খুলে একটা টপ লেভেল ডোমেইন কিনে সেটাকে আপনি ব্লগারে হোস্ট করতে পারবেন। ফলে আপনি কেবল ডোমেইন ফি ১০০০ টাকা বছরে পে করলেই হবে। তবে ব্লগার ডট কম দিয়ে ওয়েবসাইট বানাতে আপনাকে HTML বেসিক জানতে হবে। অন্যথায় আপনি ব্লগার ডট কম দিয়ে ওয়েবসাইট চালাতে পারবেন না ।

এছাড়াও অনেক সি এম এস আছে যেগুলি দিয়েও আপনি ব্লগিং করতে পারবেন । তবে সেগুলি দিয়ে ব্লগিং করতে আপনাকে অনেক বেশী প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ জানতে হবে। এজন্য এসব সি এম এস নিয়ে কাজ না কারটাই ভালো ।

নতুনদের জন্য সবচেয়ে ভালো হবে ওয়ার্ডপ্রেসে দিয়ে ব্লগিং করা। আর যদি ফ্রি হোস্টিং দিয়ে ওয়েবসাইট বানাতে চান তবে ব্লগার ডট কমই ভালো ।

তবে ফ্রি সাবডোমেইন দিয়ে ওয়েবসাইট না বানিয়ে আপনি একটা টপ লেভেল ডোমেইন ক্রয় করে নিতে পারবেন।

নিছে টপ লেভেল ডোমেইনের লিস্ট দেয়া হলো

.com, .net, .org, .co, .xyz, .info, .me, .biz, .us, .live, .name, .icu, .net.in, .mobi, .tv, .ca, .in, .one, .agency, .pw, .care, .ltd, .love, .co.in, .news, .studio, .market, .global, .io, .fm, .media, .ws, .com.au, .online, .shop, .reviews, .cloud, .stream, .pro, .store, .health, .top, .style, .tech, .dev, .ninja, .buzz, .club, .life, .social, .click, .cc, .foundation, .blog

 

এসব ডোমেইন দিয়ে আপনি খুব সহজেই অ্যাডসেন্স পেতে পারবেন।

কত টাকা খরচ হবে একটা ব্লগ সেটআপ করতে

একটা ব্লগ তৈরি করতে তেমন খরচ হবেনা। যদি ওয়ার্ডপ্রেসে তৈরি করেন তবে ডোমেইন হোস্টিং মিলে আপনাকে খরচ করতে হবে ৫০০০-৬০০০ টাকা। আর যদি ব্লগারে করেন তবে ডোমেইন বাবদ ১০০০ টাকা খরচ হবে।

 

একটি ব্লগ দিয়ে কিভাবে আয় করবেন ?

একটা ব্লগ দিয়ে অনেক অনেক ভাবে আপনি আয় করতে পারবেন। অনেকে কল্পনাও করতে পারেনা যে ব্লগ থেকে কত ভাবে আয় করা সম্ভব। যেমন ধরুন আমাদের ব্লগ ই বাই ডট কম. এই ব্লগ থেকে আমরা অনেক ভাবে আয় করে থাকি।

প্রথম আয় হলো গুগলের অ্যাডসেন্স থেকে। আপনি একটা ব্লগ খুলে যখন গুগলের অর্গানিক ট্রাফিক  পাবেন তখন গুগলে অ্যাডসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনার ওয়েবসাইটটিকে ১ সপ্তাহ পর রিভিও করে জানিয়ে দেয়া হবে যে আপনাকে অ্যাডসেন্স অনুমতি দেয়া হবে কিনা। যদি আপনি অ্যাডসেন্স পাবার উপযোগী হন তবে আপনাকে মেইল দেয়া হবে । গুগলের অ্যাডসেন্স অনুমোদন পেলেই অ্যাড আপনার ব্লগে বসিয়ে দিলে আপনার পোষ্টের মাঝে মাঝে অ্যাড চলে আসবে। সেই অ্যাডে যদি কোন ভিউয়ার ক্লিক করে তবে নির্দিষ্ট পরিমাণ আয় আসবে প্রতি ক্লিকে। সেই আয় থেকে একটা পারসেন্ট গুগল কেটে নিবে আর বাকিটা আপনাকে দিয়ে দিবে।

এর পর যে ভাবে আয় করা যায় সেটা হলো স্পন্সর পোষ্ট করে। যেমন আপনি চাইলে আপনার পপুলার ব্লগে কারো পণ্য বা ব্র্যান্ড স্পন্সর করতে পারবেন। অনেক ব্লগ এভাবে স্পন্সর পোষ্ট থেকে অনেক টাকা আয় করে থাকেন। অনেকে আবার টাকা না দিয়ে পণ্য উপহার দিয়ে থাকেন। যেমন মোবাইল কোম্পানি গুলি তাদের স্পন্সরদের জন্য নতুন মোবাইল উপহার দিয়ে থাকেন যে মোবাইলের রিভিউ তারা অনলাইনে দিতে চান।

আরো অনেক মাধ্যম আছে ব্লগ থেকে আয় করার। যেমন আপনি চাইলে আপনার ব্লগ দিয়ে সেবা বা পণ্য বিক্রি করতে পারবেন। আমাদের ব্লগেও আমরা একটা সেবা বিক্রি করে থাকি। প্রত্যেকটা কাস্টমার থেকে আমরা ১০০০ থেকে ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করে থাকি। এই আয় আপনি অফুরান্ত করতে পারবেন। কারন ব্লগে কিছু দেখলে সেটাকে ভিউয়াররা বিশ্বাসযোগ্য মনে করে থাকেন।

এছাড়া আফিলিয়েট করেও অনেকে ব্লগ থেকে আয় করেন। অনেক ওয়েবসাইট , হস্টিং কোম্পানি, ই বুক ওয়েবসাইট, ই কমার্স ওয়েবসাইট থেকে অ্যাফিলিয়েট লিঙ্ক নিয়ে আপনার ব্লগে বসিয়ে দিলেও সেখান থেকে আয় আসা শুরু হবে।